• সোমবার ( সকাল ৭:৪৬ )
  • ২০শে নভেম্বর ২০১৭ ইং
  • ১লা রবিউল-আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
  • ৬ই অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ ( হেমন্তকাল )
MY SOFT IT

ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীগুলোকে আদিবাসী স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি

আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা সবাই বাংলাদেশের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীগুলোকে আদিবাসী স্বীকৃতি দেওয়ার দাবি জানান। আদিবাসীদের শিক্ষা-সংস্কৃতি, ভূমি ও জীবনের অধিকার নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রকে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবসে আদিবাসীদের শিক্ষা, ভূমি ও জীবনের অধিকার বিষয়ক সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বক্তারা এ কথা বলেন। বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের আয়োজনে এ দিবস পালিত হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, আদিবাসীরা শোষণমুক্ত হওয়া তো দূরের কথা, আদিবাসী পরিচয়ই পাননি। আমাদের নিজেদের প্রয়োজনে তথা রাষ্ট্রের প্রয়োজনেই আদিবাসীদের মূল্যায়ন করে তাদের অধিকার দিতে হবে।

বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সভাপতি জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা) রাষ্ট্রীয়ভাবে আদিবাসী হিসেবে নিজেদের স্বীকৃতির দাবি পুনর্বার জানিয়ে বলেন, আদিবাসীদের অধিকারের বিষয়ে সরকার উদাসীন। তাই আমাদের নিজেদের প্রয়োজনেই সংগ্রামী হতে হবে, সংগ্রাম করেই বেঁচে থাকতে হবে।

মানবাধিকার কর্মী সুলতানা কামাল বলেন, সম্প্রতি কিছু কিছু আদিবাসী তাদের নিজস্ব ভাষার শিক্ষার উদ্যোগ নিলেও অধিকাংশ আদিবাসী তা পাচ্ছে না। বৃহত্তর এই জনগোষ্ঠীকে মৌলিক মানবিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করে রাষ্ট্রের উন্নয়ন সম্ভব নয়।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক মিজানুর রহমান বলেন, কোনো জনগোষ্ঠীর অধিকার হরণ করে কোনো রাষ্ট্র শক্তিশালী হতে পারে না।

কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, পার্বত্য শান্তি চুক্তি প্রণয়নের পর আদিবাসীদের তাদের ভূমি অধিকার সংরক্ষণের জন্য যে দাবি জানিয়ে আসছিল সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীতে তা সংরক্ষণ হয়নি।

বক্তারা বলেন, ক্ষমতাযন্ত্রে ঢুকে গিয়ে আমরা আদিবাসীদের নতুন নতুন সংজ্ঞা তৈরি করছি। বলছি, আদিবাসী স্বীকৃতি দিলে নানা রাজনৈতিক সমস্যার সৃষ্টি হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, আদিবাসীদের ভাষা, সংস্কৃতি ও জীবনধারা হুমকির মুখে। সমতলের আদিবাসীরা ক্রমশ ভূমিহীন হয়ে পড়েছে।

আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জিব দ্রং-এর সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন পঙ্কজ ভট্টাচার্য, আশা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডালেম চন্দ্র বর্মণ, অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম, অধ্যাপক মেসবাহ কামাল, অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, নাট্যব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ, নারীনেত্রী খুশী কবীর, রবীন্দ্রনাথ সরেন। স্বাগত বক্তব্য দেন আদিবাসী ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক শক্তিপদ ত্রিপুরা। বক্তব্যের শুরুতে আগে গণসঙ্গীত পরিবেশন করেন মাদল ও গিরিসুর শিল্পীগোষ্ঠী। বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় হরিজন ঐক্য পরিষদ—‘সন্ত্রাস নয় শান্তি চাই’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে।

Web design company Bangladesh

পুরাতন খবর

November 2017
SMTWTFS
« Oct  
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930 

Related News

গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের আদলে ছবি তুলবে ইনস্টা ৩৬০ প্রো

পথচলার সময়ই গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের আদলে আশপাশের সব ছবি তুলবে ‘ইনস্টা ৩৬০ প্রো’ ক্যামেরা। ৩৬০ ডিগ্রিতে ৮কে ফরম্যাটে ...

বিস্তারিত

গুগলের বিকল্প…

ইন্টারনেটে যেকোনো তথ্য বা উপাদান খোঁজার ক্ষেত্রে এখন যেন একমাত্র ভরসা হয়ে দাঁড়িয়েছে সার্চ ইঞ্জিন গুগল। তবে কিছু ...

বিস্তারিত

বাংলায় অ্যাডসেন্সের ঘোষণা দিল গুগল

বেশ কিছুদিন থেকেই বাংলা ভাষাকে গুরুত্ব দিতে শুরু করেছে গুগল। বাংলা ভাষার জন্য বেশ কয়েকটি সেবা চালুর ঘোষণা এসেছে ...

বিস্তারিত

নতুন আইফোনে নতুন কী কী থাকছে?

‘‌ওয়ান মোর থিং’। হ্যাট থেকে নতুন কিছু বের করে আনার আগে যেন মন্ত্র পড়ছেন জাদুকর। স্টিভ জবস এই বাক্যটিকে ...

বিস্তারিত